ঢাকা শনিবার, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭


ইবিতে ছাত্রলীগের প্রচেষ্টায় লালন হল থেকে জিহাদী সরঞ্জামাদি উদ্ধার

এম.এইচ.কবীর,ইবি প্রতিনিধি:ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) লালন শাহ হল থেকে ইসলামী ছাত্র শিবিরের জিহাদী বই ও সরঞ্জামাদি পাওয়া গেছে।
লালন শাহ হল ছাত্রলীগ হলের লাইব্রেরী কক্ষে আসন্ন ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষর্থীদের অভ্যর্থনা কক্ষ হিসেবে সাজানোর জন্য কক্ষটি পরিষ্কার করতে যায়।পরিষ্কার করার সময় আলমারিতে ইসলামী ছাত্র শিবিরের সাংগঠনিক জিনিসপত্র উদ্ধার করে।তাৎক্ষণাত ছাত্রলীগ হল প্রশাসনকে বিষয়টি জানায়।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, লালন শাহ হল ছাত্রলীগের সূত্রের ভিত্তিতে হল প্রশাসন আজ বুধবার বিকাল ৩:৩০ মিনিট এর দিকে ছাত্র শিবিরের সরঞ্জামাদি একত্রিত করে প্রক্টরের কাছে হস্তান্তর করে।ছাত্রলীগ লালন  শাহ হলের লাইব্রেরী কক্ষে ও মসজিদে জিহাদি বই,সিডি ডিস্ক,মাসিক ও বার্ষিক রিপোর্ট,সিল,পার্শ্ববর্তী এলাকার ইসলামী ছাত্র শিবিরের কমিটি ও ছাত্রশিবিরের সাথে জড়িতদের নামের তালিকা পায়।
লাইব্রেরী কক্ষে  জিহাদি বই থাকার পিছনে কার হাত রয়েছে এ বিষয়ে হল প্রশাসন কাউকে সনাক্ত করতে পারেনি।তবে হল মসজিদে শিবিরের জিহাদী বই থাকার কারণে মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনকে চাকরী থেকে সাময়িক অব্যহতি দিয়েছে হল প্রশাসন।
হল মসজিদে ইমাম ও মুয়াজ্জিন হিসেবে সাময়িক দায়িত্ব দেয়া হয়েছে যথাক্রমে আবুল খায়ের মোল্লা ও ফিরোজ খানকে।
উদ্ধারকার্য চলাকালীন সময়ে উপস্থিত ছিলেন লালন শাহ হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মুহাম্মদ মাহবুবর রহমান, প্রক্টর প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান,প্রফেসর ড. সাজ্জাদুর রহমান টিটু,
 ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিন, রিজভী আহমেদ পাপন,সালাউদ্দীন আহমেদ সজল,ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত,ফিরোজ খান সহ ছাত্রলীগের আরো নেতা কর্মীরা।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে হল প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মাহবুবর রহমান বলেন,এটা আমাদের প্রশাসনের ব্যর্থতা,পরবর্তীতে এ বিষয়ে আমরা সচেতন থাকবো এবং হলের ভিতর কোন ছাত্রের কাছে বিতর্কিত কোন পোস্টার, লিফলেট, বই বা যে কোন দলীল পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এমনকি আবাসিকতাও বাতিল হতে পারে।
প্রক্টর প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান বলেন,উদ্ধারকৃত সরঞ্জামাদি আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে পর্যালোচনা করা হবে, তারপর পদক্ষেপ নেয়া হবে।
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের
সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহীন বলেন, আসন্ন ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সহায়তায় কাজ করবে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।সাধারণ শিক্ষর্থীদের যাতে কিছুতেই ভোগান্তির সৃষ্টি না হয় এ বিষয়ে সদা নজড় রাখবো আমরা।ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধী ও সার্বভৌমত্ব নষ্ট হয় এমন জিহাদী সংগঠনের ঠায় দেয়া হবে না।

আরো খবর পড়ুন

Share on Facebook826Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Print this page