ঢাকা বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০১৮


ইবির শিক্ষক বানিয়ে দেওয়ার লোভ দেখিয়ে ১৫ লাখ টাকা আত্মসাৎ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) এক শিক্ষক চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক ছাত্রের কাছ থেকে ১৫ লাখ টাকা ঘুষ নিয়ে আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে,উনার নাম রুহুল আমিন, তিনি  বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।
এক সূত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়ার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে শিক্ষক রহুল আমিনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন প্রতারণার শিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলাম। আদালতের বিচারক মোহাম্মদ মাসুদ উজ জামান মামলাটি আমলে নিয়ে সমন জারি করেছেন।
শরিফুল ইসলাম  নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী। তিনি মামলায় উল্লেখ করেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রুহুল আমিনের সঙ্গে তাঁর ভালো সম্পর্ক গড়ে ওঠে। স্নাতকোত্তরে প্রথম বিভাগে করায় রুহুল আমিন তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক পদে চাকরি নিয়ে দেওয়ার কথা বলে ১৫ লাখ টাকা দাবি করেন।
 চাকরি দিতে না পারলে টাকা ফেরত দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। গত বছরের ১ জুন তিনি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই রুহুল আমিনকে ১৫ লাখ টাকা দেন। কিন্তু চাকরি দিতে ব্যর্থ হন ওই শিক্ষক। বিষয়টি জানাজানি হলে গত বছরের ১২ অক্টোবর অগ্রণী ব্যাংক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার অনুকূলে (হিসাব নং ১০৭১৫) ১৫ লাখ টাকার একটি চেক দেন রুহুল আমিন,  কিন্তু ওই অ্যাকাউন্টে কোনো অর্থ না থাকায় চেকটি বাতিল করা হয়।
অর্থ অাত্মসাতের  বিষয়ে ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক রুহুল আমিন বলেন, শরিফুল নামের যে ছাত্র  অভিযোগ করছেন, তাঁকে চিনি না, জানি না,সে  যে হিসাব নাম্বার উল্লেখ্য করেছে সেটি অামার হিসাব নম্বার নয়,বরং অামার ইমেজ নষ্ট করার জন্য  উদ্দেশ্যমূলকভাবে আমাকে হেয় করার জন্য তিনি এসব করছেন।

আরো খবর পড়ুন

Share on Facebook4Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Print this page