ঢাকা রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৫, ২০১৮


আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় দাবায় অংশ নিচ্ছে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়

মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় দাবা প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় দাবা ক্লাব। আগামী ২১ জানুয়ারি রোববার মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবে দলটি।  দেশের বাইরে এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক দাবা টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে বেসরকারি এই বিশ্ববিদ্যালয়টি। আগামী ২১-২৭ জানুয়ারি মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর-এর ইউনিভার্সিটি অফ মালায়ে এ প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হবে। ৯ রাউন্ড সুইস লিগ পদ্ধতিতে এই টুর্নামেন্টের খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিযোগিতার নানাদিক তুলে ধরেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্র্যাক ইন্সটিটিউট অব ল্যাঙ্গুয়েজেস-এর শিক্ষক শামস উদ দোহা।

তিনি জানান, এই আসরে তিনিসহ তিন ছাত্র- সৈয়দ ইজাজ হোসেন (রেটিং ২২১৭) সাব্বির হোসেন, মোহাম্মদ শাকিল এবং এক ছাত্রী নানজিবা ইবনাথ অংশগ্রহণ করছেন। তাদের দলের কোচের দায়িত্বে থাকবেন উপমহাদেশের প্রথম গ্র্যান্ডমাস্টার নিয়াজ মোরশেদ। তিনি আরও জানান, গত তিন বছর ধরে তিনি আমাদের ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় দাবা ক্লাবকে প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন। যারা অংশ নিচ্ছে সবাই রেটিংপ্রাপ্ত দাবাড়ু।

তিনি আরো জানান, আমাদের লক্ষ্য থাকবে এই টুর্নামেন্টে তৃতীয় অথবা চতুর্থ স্থান দখল করা। তিনি আরও বলেন, আমি জেনেছি এবারে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় অংশ নিচ্ছে না। এতে করে আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আশা করতেই পারি। গত আসরে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে দুইজন গ্র্যান্ডমাস্টারও অংশ নিয়েছিলেন। যেটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৬ সালে আবুধাবিতে। ওই আসরে ১৬/১৭টি দেশের ২২টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করেছিল। এবার বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলংকা, ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়াসহ ৬টি দেশের ১৬টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশ নিচ্ছে।

তিনি আরও জানান, সাভারে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি আবাসিক ক্যাম্পাস রয়েছে। মূলত ঐ ক্যাম্পাস থেকেই ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় দাবা ক্লাবের জন্ম।

সংবাদ সম্মেলনের বিশেষ অতিথি ব্র্যাক ই্ন্সটিটিউট অব ল্যাঙ্গুয়েজেস-এর পরিচালক লেডি সায়েদা সারওয়াত আবেদ বলেন, দাবা খেলা বুদ্ধি বিকাশে সহায়তা করে থাকে। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩ জন রেটিংপ্রাপ্ত দাবাড়ু রয়েছে। ইতঃপূর্বে আমরা সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণে দাবা টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছি। তিনি মালয়েশিয়ায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় দাবা দলের সাফল্য কামনা করেন।

পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের এফপিভি এবং কমিউনিকেশন ও ব্র্যান্ডিং ডিভিশন-এর প্রধান খন্দকার আনোয়ার ইহতেশাম বলেন, সফলতার জন্য দরকার কঠোর পরিশ্রম। ১০ হাজার ঘণ্টার কঠোর পরিশ্রম অবশ্যই সফলতা এনে দেবে। তিনি টুর্নামেন্টে দাবা দলের সফলতা কামনা করেন।

অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড়দের মধ্যে ইজাজ হোসেন বলেন, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হিসেবে আমি গর্বিত। দাবা একটি মেধাভিত্তিক খেলা। আর বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে মেধা বিকাশের একটি স্থান। এই প্রথম ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক কোনো আসরে অংশ নিচ্ছে। আমরা ভালো খেলার চেষ্টা করবো।

সংবাদ সম্মেলনে আন্তর্জাতিক দাবা বিচারক মোঃ হারুন অর রশিদও উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর পড়ুন

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Print this page